fbpx

Coronavirus disease (COVID-19): ‘সত্য মিথ্যা যাচাই আগে, ইন্টারনেটে শেয়ার পরে’ Leave a comment

Spread the love

 

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে করোনাভাইরাস/COVID-19  সম্পর্কে ফেক সতর্কতা, ভুল তথ্য ও গুজব লক্ষ্য করা গিয়েছে। এই ধরনের গুজব, ভুয়া ও বানোয়াট তথ্য জনমনে আতঙ্ক ছড়ায় ও দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করে।  

সচেতন নাগরিক হিসেবে আমাদের “সত্য মিথ্যা যাচাই আগে, ইন্টারনেটে শেয়ার পরে”  প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নির্ভরযোগ্য ও বিশ্বস্ত উৎস হতে সঠিক তথ্য সংগ্রহ করা উচিত এবং এই ধরনের গুজবকে প্রতিরোধ করা নাগরিক হিসেবে আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।

করোনাভাইরাস/COVID-19 নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট(আইইডিসিআর), বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কিছু উপদেশ দিয়েছে যা আমাদের মেনে চলা উচিত।

করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ৫ পরামর্শ

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া নোভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধে পাঁচ ধরনের পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে যা করণীয়

  • ভালোভাবে সাবান পানি দিয়ে হাত ধুতে হবে
  • হাত না ধুয়ে চোখ, মুখ ও নাক স্পর্শ না করা
  • হাঁচি–কাশি দেওয়ার সময় মুখ ঢেকে রাখা
  • অসুস্থ পশু বা পাখির সংস্পর্শে না আসা
  • মাছ, মাংস ভালোভাবে রান্না করে খাওয়া

যেভাবে করোনাভাইরাস ছড়ায়

  • আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি–কাশির মাধ্যমে
  • আক্রান্ত ব্যক্তিকে স্পর্শ করলে ছড়ায়
  • পশু, পাখি বা গবাদিপশুর মাধ্যমে ছড়ায়

করোনাভাইরাস

করোনা একধরনের সংক্রামক ভাইরাস। ভাইরাসটি পশু-পাখি থেকে সংক্রমিত হয়ে থাকে। পৃথিবীর শতাধিক দেশে বর্তমানে (মার্স ও সার্স সমগোত্রীয় করোনাভাইরাস) এর সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে। কেউ যদি এসব দেশ ভ্রমণ করে থাকেন এবং ফিরে আসার ১৪ দিনের মধ্যে জ্বর ১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট থাকে, গলাব্যথা, কাশি ও শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়, তাহলে তাঁর করোনাভাইরাসে সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা থাকতে পারে। তাঁকে জরুরি ভিত্তিতে সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

প্রয়োজনে আইইডিসিআরের নিচের নম্বরে যোগাযোগ করতে বলেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫

সাইবার স্পেসে গুজব, ভুয়া ও বানোয়াট তথ্য প্রতিরোধে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ

১) করোনাভাইরাস/COVID-19 সম্পর্কে  তথ্যের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)এর প্রেস ব্রিফিং শুনুন এবং করোনাভাইরাস/COVID-19 প্রতিরোধে প্রদত্ত উপদেশ মেনে চলুন।

২) করোনাভাইরাস সম্পর্কিত যেকোনও বিষয় যেমন – ই-মেইল, ই-মেইল সংযুক্তি, লিংক, সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট, বার্তা সম্পর্কিত ক্ষেত্রে আমাদের বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। নির্ভরযোগ্য ও বিশ্বস্ত উৎস হতে সঠিক তথ্য সংগ্রহ করে “সত্য মিথ্যা যাচাই আগে, ইন্টারনেটে শেয়ার পরে”  প্রতিপাদ্যকে সামনে সাইবার স্পেসে সবধরনের গুজবকে প্রতিরোধ করতে হবে।

৩) এই সংক্রান্ত সাইবার ফিশিং আক্রমণ হতে রক্ষা পেতে অযাচিত বা সন্দেহজনক ঠিকানা হতে আগত ই-মেইল অথবা সন্দেহ হলে সেগুলির ভিতরে থাকা লিঙ্কগুলিতে ক্লিক অথবা ডকুমেন্ট ওপেন করা থেকে বিরত থাকা উচিত। আপনার কম্পিউটার সিস্টেমে প্রতিষ্ঠিত (renowned ) এবং পরিক্ষীত অ্যান্টি-ভাইরাস ব্যবহার করুন ও সবসময় অ্যান্টি-ভাইরাস হালনাগাদ রাখুন। শক্তিশালী ও কঠিন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে, যে সকল ক্ষেত্রে মাল্টিফ্যাক্টর অথেনটিকেশন চালু করা যায়, সেই সকল ক্ষেত্রে মাল্টিফ্যাক্টর অথেনটিকেশন চালু করতে হবে। অযাচিত বা সন্দেহজনক স্মার্টফোন অ্যাপ ডাউনলোড বা ব্যবহার উচিত নয়।

Reference:


দেবাশীষ পাল,

বিজিডি ই-গভ সার্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.